1. amd477271@gmail.com : admin : প্রভাত সংবাদ
  2. mdjoy.jnu@gmail.com : dainikbangladesh : Shah Zoy
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৬:৩১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমারখালীতে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মৌসুমী আক্তার প্রচারণায় এগিয়ে কুমারখালীতে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তুষারের ব্যাপক জনসংযোগ কুমারখালীর গড়াই রেল ব্রিজের নীচ থেকে এক অজ্ঞাত ব্যক্তির বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার মহাসড়কে দুর্ঘটনা হ্রাস ও নিরাপত্তা নিশ্চিত কল্পে কুমিল্লা রিজিয়ন কর্তৃক বিশেষ অভিযানে প্রসিকিউশন ১৭০টি, থ্রি হুইলার আটক ৪০টি ও দেড় কাজি গাঁজা সহ গ্রেফতার ১ কুমিল্লা রিজিয়নের ২২ থানার পুলিশ সদস্যদের জন্য ওরস্যালাইন, গ্লুকোজ ও পানি দিচ্ছেন অতিরিক্ত ডিআইজি মো: খাইরুল আলম আতাউর রহমান আতা ভাই কে আবারো জয়যুক্ত করার লক্ষ্যে জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়টুকু দিয়ে কাজ করে চলেছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস

ডায়াবেটিস হলে খাদ্যতালিকায় কি কি রাখা যাবে, জানালেন চিকিৎসকেরা

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১
  • ২৪৬ বার পড়া হয়েছে

প্রভাত সংবাদ ডেস্ক : ডায়াবেটিস হলে মিষ্টি তো বটেই, ভাত–আলুও চলে যায় খরচের খাতায়৷ ফ্যাটও তেমন চলে না। হাজির হয় ‘সুপার ফুড’৷ করোলা–লাউয়ের রস, মেথি ভেজানো জল, কাঁচা হলুদ সহ রাজ্যের শাক–সবজি৷ ফ্রিজে সরবত, কোলড্রিঙ্কের জায়গা নেয় আমলা–অ্যালোভেরার রস৷ মাছ–মাংসের হালও তথৈবচ৷ রেড মিটের প্রশ্ন নেই৷ একটা ডিম খেতে হলেও হাজার প্রশ্ন৷ তৈলাক্ত মাছে হাই ক্যালোরি, তাই সেও প্রায় ব্রাত্য৷

মানুষ তাহলে খাবে কী? ডায়াবেটিক ডায়েট? কিন্তু বিজ্ঞানীরা যে বলছেন ডায়াবেটিক ডায়েট বলে কিছু হয় না। ডায়াবেটিস হলেও বিজ্ঞানীরা সাধারণ সুষম খাবার খেতে বলেন, যা এমনিই আমাদের খাওয়ার কথা, যাতে কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ফ্যাট আছে মাপমতো, যে খাবারে নিষিদ্ধ কিছুই নেই৷
‘‘স্বাভাবিক অবস্থায় যেমন ঘন ঘন অনিয়ম করলেও খুব ক্ষতি নেই, কিন্তু এ ক্ষেত্রে ততটা করা যায় না,’’ জানালেন হরমোন বিশেষজ্ঞ সতীনাথ মুখোপাধ্যায়৷ ‘‘এমনকী, আপনি যদি রোজ আলু খেতে চান, তাতেও আপত্তি নেই৷’’

‘চাল–গমের মতো আলুও স্টার্চ৷ তা হলে ভাত–রুটি যদি ব্রাত্য না হয়, আলু হবে কেন?’ প্রশ্ন তুললেন সতীনাথবাবু৷ ‘‘বিশেষ করে যেখানে ১০০ গ্রাম চাল–গমে আছে ৩৪০ ক্যালোরি আর আলুতে ১০০ ক্যালোরি। তা ছাড়া আলুতে আছে ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড, যা ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স কমিয়ে ডায়াবেটিসের উপকার করে৷ তবে আলুর গ্লাইসিমিক ইনডেক্স বেশি৷ অর্থাৎ রক্তে চট করে সুগার বাড়িয়ে দেয়৷ কিন্তু খোসাসমেত খেলে সঙ্গে অন্য শাক–সব্জি মিশিয়ে নিলে ফাইবারের দৌলতে পুরো খাবারের জিআই কমে যায়৷ তখন তা নিশ্চিন্তে খাওয়া যায়৷’’

‘‘তবে আলু ভাজা নয়৷ খেতে হবে সেদ্ধ করে বা তরকারিতে দিয়ে৷ আবার স্রেফ আলু–ভাতে না খেয়ে আলু–উচ্ছে, আলু–পটল বা আলু–বেগুন ভাতে খেলে যেমন পুষ্টি বেশি হবে, চট করে সুগারও বাড়বে না৷ আর কোনও দিন যদি আলু সেদ্ধ বা আলুর তরকারি খেতে চান, সে দিন ভাত–রুটি একটু কম খেলেই হবে,’’ বললেন পুষ্টিবিদ প্রিয়াঙ্কা মিশ্র৷
অনেকে ভাবেন, ডায়াবেটিস হলে কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাট কমিয়ে খেতে হয় প্রচুর প্রোটিন, ব্যাপারটা তা নয়৷ মোট ক্যালোরির ৫০ শতাংশের বেশি কার্ব থেকে না এলেই হল৷ এবং তা যেন ফাইবারসমৃদ্ধ হয়৷ তাই ময়দার বদলে হোল-গ্রেন আটা, সাদা চালের বদলে ব্রাউন বা ওয়াইল্ড রাইস, সাদা পাউরুটির বদলে ব্রাউন ব্রেড, ফলের রসের বদলে গোটা ফল খেতে বলা হয়৷ সব্জি, ডাল খেতে হয় খোসাসমেত৷ সব্জি ও ফল দিনে ১০০ গ্রামের মতো খাওয়া দরকার৷ আম–কলাও মাঝেমধ্যে দু–এক টুকরো খাওয়া যায়৷ মিষ্টি বা মদও ন’মাসে ছ’মাসে খেতে পারেন৷ তবে ভরাপেটে, ফাইবারসমৃদ্ধ খাবারের সঙ্গে৷
আ/বা

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন