1. amd477271@gmail.com : admin : প্রভাত সংবাদ
  2. mdjoy.jnu@gmail.com : dainikbangladesh : Shah Zoy
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৭:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমারখালীতে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মৌসুমী আক্তার প্রচারণায় এগিয়ে কুমারখালীতে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তুষারের ব্যাপক জনসংযোগ কুমারখালীর গড়াই রেল ব্রিজের নীচ থেকে এক অজ্ঞাত ব্যক্তির বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার মহাসড়কে দুর্ঘটনা হ্রাস ও নিরাপত্তা নিশ্চিত কল্পে কুমিল্লা রিজিয়ন কর্তৃক বিশেষ অভিযানে প্রসিকিউশন ১৭০টি, থ্রি হুইলার আটক ৪০টি ও দেড় কাজি গাঁজা সহ গ্রেফতার ১ কুমিল্লা রিজিয়নের ২২ থানার পুলিশ সদস্যদের জন্য ওরস্যালাইন, গ্লুকোজ ও পানি দিচ্ছেন অতিরিক্ত ডিআইজি মো: খাইরুল আলম আতাউর রহমান আতা ভাই কে আবারো জয়যুক্ত করার লক্ষ্যে জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়টুকু দিয়ে কাজ করে চলেছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস

সুদ কারবারী এনামুলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।বাদ পড়েনি আপন ভাই প্রশাসনের দৃৃষ্টি আকর্ষণ। প্রতিবাদী কন্ঠস্বর ডেক্স

  • প্রকাশিত: বুধবার, ৯ আগস্ট, ২০২৩
  • ২০০ বার পড়া হয়েছে

 

প্রতিবাদী কন্ঠস্বর ডেক্স

কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর
উপজেলার সদরপুর ইউনিয়নের মৃত নুর মোহম্মদ মোল্লার পুত্র মোঃএনামুল হক(৩৮)সুদকারবারীর এর বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ উঠে এসেছে, এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় নওদা আজমপুর গ্রামের রম্মত নামে একজন ভ্যান চালকের বসতবাড়ি জোর করে দখল করে নিয়েছে ,একই গ্রামের কাশেম নামে একজন ভ্যান চালকের বউ কে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মুক্তি পণ হিসাবে সুদের টাকা আদায় করেছে ,উল্লাস খা নামের এক ব্যাক্তির মায়ের স্বর্ণের এক জোড়া দুল নিয়ে নিয়েছে ,সুদের টাকা না দিতে পারায় একই গ্রামের আনিচ নামের এক ব্যক্তি নিজ বাড়ীতে আসতে পারে না গত চার বছর যাবৎ, চৌধুরী পাড়া গ্রামের নজরুল ইসলাম নামের একজনের ভাতিজাকে মার ধর করে টাকা আদায় করেছে, তার আপন মেজ ভাই নজরুল ইসলাম এর ৫ কাঠা ধানী জমি নামমাত্র কিছু টাকা বায়না করে মেম্বর সহ মেম্বারের বড় ভাই নালান মোল্লা ২.৫ বিঘা জমি জোর পূর্বক দখল করে রেখেছে এই বিষয়ে উনার মেজ ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম্য আদালতেই মামলা করেছেন যার বিচার প্রক্রিয়াধীন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন বলেছেন তিনি সদরপুর ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হওয়ার কৌশল হিসেবে বেছে নিয়েছিল সুদকারবারী, তার নিজ ওয়ার্ডের ৫০ জনের কাছে সুদে টাকা দিয়েছিলো শর্ত ছিলো নির্বাচিত হলে শুধু আসল টাকা ফেরত দিতে হবে আর না হলে ভোটের পরের দিনই সুদ সহ আসল টাকা দিতে হবে যার কারনে তাকে নির্বাচিত করতে বাধ্য হয়েছিল ভুক্তভোগী পরিবার, নির্বাচিত হওয়ার পরে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে মেম্বার এনামুল হক ও তার বড় ভাই নালান মোল্লা। তাদের ভয়ে এই সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে না ভুক্তভোগীসহ সুদের উপর টাকা নেওয়া পরিবার , নির্বাচিত হওয়ার পরপরই ২ বছরের মধ্যে ভিটা জমি ,ধানী জমি সহ মোট ১৩ বিঘা জমি ক্রয় করেছে যার আনুমানিক মূল্য দেড় কোটি টাকা, এত টাকার মালিক উনি কিভাবে হলেন, এই বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য দুদক ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী।গুনীজনরা বলেন যে বর্তমান এই সুদের ব্যাবসায়ীরা সহজ সরল মানুষগুলোর মস্তিষ্ক ওয়াস করে তাদের টাকা দেই পরবর্তীতে তাদের সুদের টাকা না দিতে পারলে পচন্ড চাপ সৃষ্টি করে ফলে বহু মানুষ আত্মহত্যার মতো পথ বেছে নেই, তাই এই সমস্ত সুদের কারবারীদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরী বলে মনে করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন